দেশের বই ঈদ সাময়িকী

শাকেরা আহমেদ-এর একগুচ্ছ কবিতা

শুক্রবার, ২১ মে ২০২১ | ৮:২৬ অপরাহ্ণ | 116 বার

শাকেরা আহমেদ-এর একগুচ্ছ কবিতা

এক গুচ্ছ কবিতা
।। শাকেরা আহমেদ ।।


 

মধুবাজ

তৈলারদ্বীপ জুড়ে ফুটে উঠে তোমার অবয়ব।
আনোয়ারা, জহুরিচাঁপার মতো ফুটে আছে,
আধ ফোটা।
কুসুম ফুলের কারুকাজে সাজানো
ডালা, কুলো আর শখের হাঁড়ি।
চোখ দু’টা
সোনাল স্বপ্নে উপুড়।
মেঘচামীর ধুলো-ধূসর পথে হারানো কুড়ানো তোমায় খুঁজে খুঁজে শঙ্খশালিক পথিক
ক্লান্ত আজ।
পাকদণ্ডি, ডাণ্ডি-কাণ্ডির ঝুট-ঝামেলায়
পরোভোজী তুমি
মধুবাজ।
পাহাড়ের ওই পাড়ে তুমি মৈথুনরত।

বুকের ভেতর সোনাঝুরি ক্ষত!

 

মেঘবতী

মেঘবতী, তোমার পেছনে দীঘি। শানবাঁধানো
শেষ ধাপে বসে আছো। পুষ্পচয়নরত।
নৃত্যের ভঙ্গিমায় যেন কোনো অপ্সরী।
সানাই বাজিয়ে যাচ্ছে পালেদের মেয়ে- বৌ।
জল সইতে।
পালকন্যা শুভার আজ হলুদ ভোর।
তোমার মাথায়, পিঠে টুপ টুপ
ঝরছে হলদে পলাশ।
ভেঙে যাচ্ছে জল, জলের ঢেউ।
যেন জল নয় ভাঙছে হৃদয়।
তুমি নেমে যাচ্ছ…
একটা কৃষ্ণপদ্ম ভাসছে।
শ্যাম্পু মাখা চুল ডুবে ফেনার ঢেউ।
আমি সানসিল্ক শ্যাম্পুর ঘ্রাণ পাই।
অপ্সরী নয়, ডুবে যাচ্ছে জলকন্যা।
হৃদয়ে সানাই বাজনার আসর বসেছে।
বিসমিল্লাহ খানের কিংবদন্তি সুর
বাজছে… বেজেই চলেছে।
কার হলুদ ভোর?
কিংবা সন্ধ্যা…

 

অয়ন পাখির ডানা

চোখের অর্ধেক জুড়ে ঝুলে আছে
তোমার মুখচ্ছবি। তোমাকে দেখতে পাচ্ছি না।
বিরাম চিহ্নহীন সরল গদ্যের মতো ঝুলন্ত নাক
আপন অস্তিত্বের বাজাচ্ছে জয়ঢাক।
মেঘচামির রোদের আবির তোমার চুলে,
সিঁথিতে, মুখে চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে মিশে আছে
ভালোবেসে। ধূলি-স্নান শেষে
ধূলি-গন্ধ মেখে উড়ে যায় শঙ্খশালিক।
বুকের মধ্যে না বলা কথাগুলো
জমে জমে পাহাড় হয়ে যায়।
বাঁশপাতি তার রং হারায়
ভেঙে যায় অয়ন পাখির ডানা।

Facebook Comments Box