তুমি-আমি কিংবা…

বৃহস্পতিবার, ০৭ জানুয়ারি ২০২১ | ৫:০৪ অপরাহ্ণ | 88 বার

তুমি-আমি কিংবা…

‘প্রতিদিনের কবিতা’ দেশের বই-এর নতুন আয়োজন। এই আয়োজনে প্রতিদিন তরুণ কবিদের একগুচ্ছ কবিতা প্রকাশ করা হয়। আজ প্রকাশিত হলো মাহারা মাহী’র কবিতা

 

উদ্দেশ্য তুমি

কখনো কী নিঃশ্বাস ভারী হয়েছে আমার জন্য?
কখনো কী দম বন্ধ হয়ে যাওয়ার জোগাড় হয়েছে
আমাকে না দেখার আকাঙ্খায়!
কিংবা না কথা বলার শব্দগুলোতে?

কখনো কী তোমার মনে হয়েছে….
কী দীর্ঘ সময় ধরে একটা মানুষ তোমার অপেক্ষায়

একটা মানুষ শীতল জল ছুঁয়ে যায়
চোখের গরম নোনা জল দমিয়ে রেখে
তোমার আকুলতায়…

তুমি চাইলেই

তুমি চাইলেই ইচ্ছেগুলো পাল্টিয়ে ফেলব
স্বপ্নগুলো তোমার হাতের মুঠোয় দিব
তুমি চাইলেই সুপ্ত চাওয়া, বিলাসিতার লোভগুলো
তোমার পায়ে ফেলব

তুমি চাইলেই অর্থের মোহ ছেড়ে তোমার হাত ধরব
সব বাধা অতিক্রম করে
তোমার কাছেই থাকব

তুমি চাইলেই প্রাচুর্যের আমি
নত হব তোমার কাছে
যদি চাও আজীবন সমর্পিত হবো

তুমি চাইলেই উপেক্ষাকে ফেলে দিয়ে
তোমাকেই আগলে রাখব

হয়তোবা

যদি তার সাথে মিলে যাই
পাশাপাশি হাঁটার চেষ্টা
নতুন করে ভেবে যাই
যদি নতুন করে নতুন ভাবে
অন্য কোনোখানে স্বপ্ন সাজাই
কতটা ব্যথাতুর হবে তুমি?

ঠিক কতটা মনের ক্ষয় হলে
আস্তরণগুলো খসে খসে পরলে
জানা যাবে তোমার মনের কথা!

তোমার অন্তর্মুখী মনের কথা
তোমার লুকায়িত অবহেলায়
যাচ্ছি অনেক দূরের খেয়ায়

তবে কি তুমি মুখ ফোটে বলে ফেলবে
‘ভালোবাসি তোমায়…
কত অপেক্ষা, কত আক্ষেপ
কত-শত না বলা কথা হয়নি বলা!’

ঘরময়

দুটো হাত মুখবয়ব জুড়ে
ঘর্মাক্ত সারা শরীর
টপ-টপ করে পরছে ঘাম
তুমি তা মুছে দিচ্ছ সযতনে।

গায়ে লেগে আছে তোমার ঘ্রাণ
চোখ জুড়ে তোমার আস্ত মুখখানা।

ঘরময় কেবল তুমি তুমি ব্যাপার!

তোয়ালে, কিংবা চাদরে তোমার অস্তিত্ব
এস্ট্রেতে তোমার রেখে যাওয়া সিগারেটের ছাইগুলো
ঘুরপাক খায়, ওড়ে কিছুটা
সিলিং ফ্যানের বাতাসে
ঘরময় কেমন তুমি তুমি ব্যাপার।

আমি ও তুমি

আমার জীবন কারও জন্য সীমাবদ্ধ নয়
নিজেকে মেলে ধরেছি
তোমার হৃদয়ে; নিজের অস্তিত্বে!

আমার অস্তিত্ব জুড়ে কেবল তোমার
একার চলাচল নয়
কিংবা তোমার একার বসবাসও নয়…

আমার সৃষ্টি এই প্রকৃতির জন্য
সবুজের মাঝে নিজের ডানা মেলে দেয়ার জন্য

তোমাকে যেমন আবদ্ধতায় রাখিনি
আমার শেকল তোমায় যেমন বন্দী করেনি
তোমাকেও আমি উজাড় করে দিয়েছি
সকল স্বকীয়তায়, গহীনে, গভীরতায়, গর্জনতায়।

Facebook Comments