জন্মদিন

কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলনের জন্মদিন আজ

বুধবার, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ১০:৩৬ অপরাহ্ণ | 33 বার

কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলনের জন্মদিন আজ

১৯৭৭ সালে সাপ্তাহিক ‘বিচিত্রা’ পত্রিকায় ‘সজনী’ নামের একটি গল্প পাঠক মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। তারপর কিশোর বাংলা পত্রিকায় শিশুতোষ গল্প লিখে সাহিত্য জগতে আত্ম-প্রকাশ ঘটে সে লেখকের। সময়ের পরিক্রমায় এপার-ওপার দুই বাংলাতে জনপ্রিয় হয় তাঁর উপন্যাস ‘নূরজাহান’। হয়ে ওঠেন বাংলাদেশের কথাসাহিত্যে প্রথম জনপ্রিয় ও পাঠকনন্দিত লেখক। তিনি ইমদাদুল হক মিলন। বাংলাদেশের প্রখ্যাত এই কথাসাহিত্যিক ও নাট্যকারের আজ জন্মদিন।

 

নাটকের পাশাপাশি গল্প, উপন্যাস রচনা করেও জনপ্রিয় হয়েছেন। ইতোমধ্যে প্রায় দুই শতাধিত বই প্রকাশিত হয়েছে তাঁর। অধিবাস, পরাধীনতা, কালাকাল, বাঁকাজল, নিরেন্নর কাল, পরবাস, কালোঘোড়া, মাটি ও মানুষের উপাখ্যান, পর, কেমন আছ, সবুজপাতা, জীবনপুর প্রভৃতি তাঁর বিখ্যাত উপন্যাস। জীবনের প্রয়োজনে নানাবিধ অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে তাঁকে। সেই সব অভিজ্ঞতা ঋদ্ধ করেছে তাঁঁর লেখাকে। কোন কাননের ফুল, বারো রকম মানুষ, রূপনগর, যুবরাজ, কোথায় সেজন, আলতা, কোন গ্রামের মেয়ে, মেয়েটি এখন কোথায় যাবে’র মতো দেড় শতাধিক জনপ্রিয় নাটক রচনা করেছেন ইমদাদুল হক মিলন। সম্মাননাস্বরূপ লাভ করেছেন অসংখ্য পদক।

 

১৯৯২ সালে বাংলা একাডেমি পদক ও ২০১৯ সালে বাংলাদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদক লাভ করেন। ১৯৫৫ সালের ৮ সেপ্টেম্বর বিক্রমপুরের মেদিনীমন্ডল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। পৈত্রিক নিবাস মুন্সিগঞ্জের লৌহজং থানার পয়সা গ্রামে। ১৯৭২ সালে পুরান ঢাকার গেন্ডারিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক, ১৯৭৪ সালে জগন্নাথ কলেজ থেকে মাধ্যমিক ও ১৯৭৯ সালে বর্তমান জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক পাশ করেন তিনি। লেখালেখির শুরু ১৯৭৩ সালে ‘বন্ধু’ নামের ছোটগল্পের মধ্য দিয়ে। জীবন ও জীবিকার প্রয়োজনে নিরন্তর ছুটে বেরিয়েছেন তিনি, গিয়েছিলেন জার্মানেও। তবু লেখালেখি থেকে দূরে সরে যাননি।

 

ছেলেবেলায় নানীর মুখে গল্প শুনে অভ্যস্ত হয়েছিলেন বলে ছোটগল্প দিয়েই শুরু করেন লেখক জীবনের সূচনা। ব্যক্তি জীবনের উপলব্ধি ও অনুভূতির ভাষাকে পাঠকের সম্পদ করে তুলেছিলেন তিনি। সাহিত্যবোদ্ধাদের অনেকেই তাঁর নিজস্ব লেখনরীতির জন্য তাঁকে ধ্রুপদ সাহিত্যিক ভাবতে শুরু করেছেন। ধ্রুপদ সাহিত্যিক, জনপ্রিয় নাট্যকার ও পাঠকনন্দিত কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলনের জন্মদিনে তাঁর দীর্ঘায়ু ও আনন্দময় সুস্থ জীবন কামনা করি।

 

Facebook Comments Box