আমি এক নিঃসঙ্গ প্রাণ

রবিবার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১ | ১:৫২ অপরাহ্ণ | 145 বার

আমি এক নিঃসঙ্গ প্রাণ

‘প্রতিদিনের কবিতা’ দেশের বই-এর নতুন আয়োজন। এই আয়োজনে প্রতিদিন তরুণ কবিদের একগুচ্ছ কবিতা প্রকাশ করা হয়। আজ প্রকাশিত হলো লোকমা সৃজন’র কবিতা


 

শিশু মানব

আমি এক নিঃসঙ্গ প্রাণ
আন্ধকারে কুৎসিত কালো ছায়াটাও
আমায় একলা রেখে পালায়

বাতাস আমায় দুমুঠো স্বস্তি দেয় বটে
তবে তা ক্ষণিকের
অম্লজান আমায় বাঁচতে শেখালো না
সৈকতে শুক্তি আমার স্পর্শে এলো না
সতীত্বনাশ কুমারির ক্রন্দন
আমার মনে লাগে না
সূরাজ জ্বলতে-জ্বলাতে শেখালো না

বিদ্রোহী মন সান্ত্বনা দিয়ে যায়-
প্রতিবাদী হতে বলে না
এ জন্মে চির শিশু মানব হতে পারলাম না
এ জন্মে চির শিশু মানব হতে পারলাম না।

আরেক বাইট

শোনো তবে হে
আমি নিজেকে ভালোবাসি
সবচেয়ে বেশি ভালোবাসি
ঈর্ষা হয়?
হলেই বা কি?
নিজ সত্তাকে চেনো?
খুঁজেছো কোনো দিন?
খোঁজোনি তো…

হুউ,
আমারে করো ঘৃণা?!
নিজের পরে আমি ঘৃণারে ভালোবাসি
ওরে থাম
কথা ঘুরাও কেন?
ভয় তো আমিও পাই
তবে পালাই না
আরে ভাই যাইও না
আসো আরেক বাইট খাই

প্রাণ

মুখে যাহা বল
মনে তাহা নাই
উপরে বীর সাহসী
আসলে ভীতু রাম
ভূতে ভয় নেই শুনেছি
তবু কেন বুক নড়ে
আর কত রং
মুখোশ রে ভাই
অলি শুধু কাঁদে!

ভাবিয়েন তবে

কড়ি লইয়া কারা-কারি হগলে ভাই-ভাই
পিতৃগণের মৃত চক্ষু পিপাসা আহে-যায়
এক গামলা শত স্নান স্মৃতির কানা-কানি
ভদ্রলোকের বুক ফাঁ-ফাঁ স্তম্বের হানা-হানি
নিজ সন্তান রত্ন তুল্য বিদ্যার ঠেলাগাড়ি
শিক্ষা নিতেছে তোমা হেতা করিবে ভরাডুডি

মন

আমি মরব না
হায় রে হাঁদারাম, আমায় মারতে পারবি না
আমার যে ক্ষয় নেই রে বাপ!
কে হে তুই?
সামান্য ক্রসফায়ার
কি করার ক্ষমতা আছে তোর, শুনি?

আমি সূর্যের চেয়েও তেজে জ্বলি
জঙলি ঘোড়ার চেয়ে জোরে ছুটি
সেখানে কে হে তুই?
কালো মুখোশের দৈত্য আর দড়ি
ভেবে দেখ একবার, তুই কতটা সূক্ষ্ম?
আমি জলের চেয়েও শক্ত ঢের
ইঁদুরের দাঁতের চেয়েও ধারালো
কে হে রে তুই?
স্বল্প যন্ত্রণা
জানিস কতটা বোকা যে তুই?
ওরে শালা এখনও বুঝলি না রে
আমি মরব না
কিছুতেই মরব না আমি


  • দেশের বই পোর্টালে লেখা পাঠাবার ঠিকানা : desherboi@gmail.com
Facebook Comments